May 21, 2022

হুর হুর করে দাম কমছে স্বর্ণের বাজারে,,

বিশ্ববাজারে বড় দরপতন হওয়ায় দেশের বাজারে স্বর্ণের দাম নির্ধারণ করা হতে পারে চলতি সপ্তাহে। এমন সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি (বাজুস)।

স্বর্ণ ব্যবসায়ী সংগঠনটির নেতারা জানান, বিশ্ববাজারে প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম ১০০ ডলারের ওপরে কমে গেছে। ফলে স্বাভাবিকভাবেই দেশের বাজারে স্বর্ণের দাম কমানো হবে। এনিয়ে চলতি সপ্তাহে আনুষ্ঠানিকভাবে স্বর্ণের দাম কমানোর ঘোষণা দিবে বাজুস।

বাজুস সূত্রে জানা গেছে, আন্তর্জাতিক বাজারের সংগে সমন্বয় করতে বাজুস চাইলে প্রতি ভরি স্বর্ণের দাম চার হাজার টাকা পর্যন্ত কমাতে পারে। সে ক্ষেত্রে কার্যনির্বাহী কমিটিই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে।

গত ২৩ মে দেশের সবশেষ স্বর্ণের দাম সমন্বয় করে বাজুস। সে সময় প্রতি ভরি স্বর্ণের দাম ৪ হাজার ৩৭৪ টাকা বাড়ায় বাজুস। সে হিসাবে বর্তমানে ২২ ক্যারেটের প্রতি ভরি (১১ দশমিক ৬৬৪ গ্রাম) স্বর্ণ ৭৩ হাজার ৪৮৩ টাকা, ২১ ক্যারেটের স্বর্ণ ৭০ হাজার ৩৩৩ টাকা, ১৮ ক্যারেটের স্বর্ণ ৬১ হাজার ৫৮৪ টাকা ও সনাতন পদ্ধতির প্রতি ভরি স্বর্ণ ৫১ হাজার ৬২ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

ওই সময় স্বর্ণের এই দাম বাড়ানোর কারণ হিসেবে বাজুস জানায়, করোনার কারণে সৃষ্ট অর্থনৈতিক সঙ্কট ও নানা জটিল সমীকরণের কারণে বিশ্ববাজারে স্বর্ণের মূল্য বেড়েছে। একই সঙ্গে আন্তর্জাতিক রুটে ফ্লাইট বন্ধ থাকা, আমদানি পর্যায়ে শুল্ক জটিলতা (উপকরণ কর রেয়াত) ও নানা ধরনের দাফতরিক জটিলতার কারণে গোল্ড ডিলাররা স্বর্ণের বার আমদানি করতে পারছে না। তাছাড়া চাহিদার বিপরীতে যোগান কম থাকায় দেশীয় বুলিয়ান/পোদ্দার মার্কেটেও স্বর্ণের মূল্য বেড়েছে। এ কারণে স্বর্ণের দাম বাড়ানো হয়েছে।

বাংলাদেশে যখন স্বর্ণের দাম বাড়ানো হয়, তখন বিশ্ববাজারে প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম ছিল ১৮৮১ ডলার। সর্বশেষ গত সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস বিশ্ববাজারে স্বর্ণের দাম কমে প্রতি আউন্সের দাম ১৭৬৪ ডলারে নেমে এসেছে। এই হিসাবে বাংলাদেশে বাড়ানোর পর আন্তর্জাতিক বাজারে স্বর্ণের দাম কমেছে আউন্স প্রতি ১১৭ ডলার। দাম বাড়ানো কমানোকে স্বর্ণ ব্যবসায়ীদের ভাষায় বাজার সমন্বয় বলে।

এবিষয়ে বাজুস সভাপতি এনামুল হক খান বলেন, আগামী সোমবার বাজুসের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্যরা বৈঠকে বসবেন। সেখানে স্বর্ণের দাম সমন্বয় করা হবে। আপাতত আমরা দুই হাজার টাকা কমনোর ব্যাপারে মোটামুটি চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

গত সপ্তাহে বিশ্ববাজারে স্বর্ণের দামে আউন্স প্রতি ১০০ ডলারের ওপরে কমেছে। ২০২০ সালের মার্চের পর এই প্রথম এক সপ্তাহে স্বর্ণের দামে এতো কমলো। যা গত দুই মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন পর্যায়ে নেমেছে।

চলতি জুন মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহে বিশ্ববাজারে প্রতি আউন্স স্বর্ণের ছিলো ১৮৭৭ ডলার। যা সপ্তাহ শেষে কমে দাঁড়িয়েছে ১৭৬৪ দশমিক ২১ ডলারে। ফলে এক সপ্তাহে প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম কমেছে ১১২ দশমিক ৭৯ ডলার। আর মাসের ব্যবধানে কমেছে ৫ দশমিক ৬৪ শতাংশ। একই সময়ে রূপা ও প্লাটিনামের দামও কমেছে। গেল সপ্তাহে প্রতি আউন্স প্লাটিনামের দাম দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৩৪ ডলারে। আর রূপার দাম প্রতি আউন্সে কমেছে ২৫ দশমিক ৭৬ ডলার।

Leave a Reply

Your email address will not be published.