May 21, 2022

বাংলাদেশের জামাই ম’ঈন আলী !

হ্যাঁ, বিশ্বাস ক’রু’ন আর নাই ক’রু’ন, ইংল্যান্ডের দুনিয়া কাঁপানো এই অ’ল’রা’উ’ন্ডা‘র আসলে বাংলাদেশের জামাই। তাও আবার যেন তেন প্র’কা’রে জামাই নয়। প্র’বা’সী কোনো বাংলাদেশীকে বিয়ে করেননি। রীতিমতো বাংলাদেশে এসে প্রেম করেন, সি’নে’মার মতো করে পারিবারিক প্র’তি’কূ’ল’তা দূর করে তবে এখান থেকে নিয়ে গেছেন স্ত্রীকে।

মজার ব্যা’পা’র হলো, সেই স্ত্রীর আ’গ্র’হেই ২০১৬ সালে যখন নিরাপত্তার ই’স্যু’তে বাংলাদেশে অনেক ইংলিশ তা’র’কাই আসতে অ’নি’চ্ছু’ক ছিলেন তখন ইংল্যান্ড দলের খেলোয়াড়দের মধ্যে সবার আগে ম’ঈনই বাংলাদেশ সফরে আ’গ্র’হের কথা জানিয়েছেন।

ম’ঈন আলী ও তার স্ত্রীর পরিবার অবশ্য কখনোই বিষয়টা নিয়ে খো’লা’সা করেননি। তবে, জানা গেছে তাঁর স্ত্রীর নাম ফি’রোজা হোসেন, ফি’রোজার জন্ম বাংলাদেশেই।

২০০৫ সালে ম’ঈন আলীর সাথে পরিচয় তার স্ত্রীর। সে বছর এক ত্রিদেশীয় সি’রি’জ খেলতে ইংল্যান্ড অনূর্ধ্ব-১৯ দলের হয়ে বাংলাদেশে এসেছিলেন ম’ঈন। প’রি’চ’য় হয় সিলেটের এক মেয়ের সাথে। সেখান থেকে সম্পর্ক। ২১ বছর বয়সে সেই মেয়ের সাথেই বিবাহবন্ধনে আ’ব’দ্ধ হন ম’ঈন।

শুরুতে বাংলাদেশের এই পরিবারটি কিছুতেই এরকম অপ’রি’চি’ত এক বিদেশীর সাথে মেয়ের বিয়ে দিতে চাচ্ছিলেন না। জানা গেলো, যে বাংলাদেশ জা’তী’য় দলে ম’ঈন আলীর এক বন্ধু ক্রি’কে’টা’র তখন কিছুটা দূ’তি’য়া’লিও করেছেন! পরে ম’ঈনের পরিবারের আ’গ্র’হে মেয়ের পরিবারের স’দ’স্যরা ইংল্যান্ডে গিয়ে দেখেশুনে তবে রাজী হয়েছেন। পরিবারের স’ম্ম’তিতেই দু’জনের বিয়ে হয়েছে।

এরপর হয়েছে বিয়ের অ’নু’ষ্ঠা’ন। পরিবার-প’রি’জ’ন নিয়ে মিডিয়ার সামনে ম’ঈন আলী তেমন আসেন না। তবে একবার মাঠে দেখা গেছে তার ছেলে আবু ব’ক’রকে।

পরিবার নিয়ে ইংল্যান্ডেই থাকেন ম’ঈন আলী। ফি’রোজার পরিবারও থাকে ইংল্যান্ডেই। ম’ঈনের সাথে ফি’রোজা বাংলাদেশে আসলেও সেবার সিলেটে যাওয়া হয়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.