May 21, 2022

স্বামীকে নাম ধরে ডাকা প্রসংগে : অধ্যাপিকা মৌলুদা খাতুন মলি

দাম্পত্যজীবনে স্বামীকে নাম ধরে ডাকাডাকি করা ‘পাপ’ বা ‘হারাম’ নয়। তবে স্বামীকে নাম ধরে ডাকা চরম বেয়াদবি, অসৌজন্যতা এবং মাকরুহ। স্বামীকে প্রত্যক্ষ- পরোক্ষভাবে ছোট বা অসম্মান করার সামিল।

স্বামীর প্রতি-স্ত্রীর ভালবাসা এবং শ্রদ্ধাবোধ উভয়টিই থাকতে হবে। বাবা, চাচা, মামা, খালুকে (প্রয়োজন ছাড়া) যেমন নাম ধরে ডাকাডাকি করা অভদ্রতা, স্বামীর ক্ষেত্রেও তাই। বিয়ের পর- স্ত্রীর অভিভাবক হলো- তার স্বামী।

এক হাদিসে রাসুল (সা) বলেন-
“যদি কোনো মানুষকে হুকুম দিতাম অন্য কোনো মানুষকে সিজদা করার, তাহলে স্ত্রীকে হুকুম দিতাম তার স্বামীকে সিজদা করার”। (তিরমিযী) ।

এ হাদিস দ্বারা এটাই বুঝা যায় যে, আল্লাহ ও রাসুল (সা) এর পর- স্ত্রীর কাছে সবচেয়ে বেশী গুরুত্বের এবং শ্রদ্ধার পাত্র হলো তার স্বামী।

তবে প্রয়োজনে-
যেমন- কেউ জানতে চাইলো –
তোমার স্বামীর নাম কি? তখন অবশ্যই নাম বলা যাবে।

কোনো গল্পে বা কোনো লেখালেখিতে স্বামীকে পরিচিতি করানোর উদ্দেশ্যে কিংবা ঘটনা বুঝার সুবিধার্থে (লেখায়) স্বামীর নাম ব্যবহার করা অবশ্যই যাবে। এছাড়া
আমরা যেমন ছেলেমেয়ে, ছোট ভাইবোন, বন্ধুবান্ধবকে যেভাবে নাম ধরে সম্বোধন করি, ডাকাডাকি করি- স্বামীর ক্ষেত্রে এটা অবশ্যই করা অনুচিত, বেয়াদবি। আশাকরি, সাংসারিক জীবনে যারা স্বামীকে (এখনো) নাম ধরে ডাকাডাকি করে- তাদেরকে বিনীত অনুরোধ করছি- এটি আর না করার জন্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published.