May 26, 2022

পু’লিশ দেখেই খাবার রেখে দৌড়ে পালাল বর-কনেসহ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ৫০০ অ’তিথি

সরকারি নিষে’ধা’জ্ঞার মধ্যেই আজ দুপুরে কেউ ব্যস্ত খাওয়া নিয়ে, কেউ আবার ব্যস্ত অ’তিথিদের বরণ নিয়ে। অন্যদিকে বর-কনে নিয়ে ব্যস্ত আরেক দল মানুষ। এভাবেই বিয়ের অনুষ্ঠানের আনন্দে মশগুল সবাই। এমন সময় হঠাৎ হাজির পু’লিশ। আর তাতেই সব পণ্ড

পু’লিশের গাড়ি দেখেই দৌড়ে পালালেন বর-কনেসহ অনুষ্ঠানে উপস্থিত কয়েকশ অ’তিথি। আজ সোমবার (২৮ জুন) দুপুরের চট্টগ্রামের রাউজানের নোয়াপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ব্যাপারে পু’লিশ জানায়, লকডাউনে সরকার বিয়েসহ যেকোনো ধরনের জনসমাগমে নিষে’ধা’জ্ঞা দিয়েছে।

এ বিষয়ে প্রজ্ঞাপনও জারি হয়েছে। এরই মধ্যে নোয়াপাড়া এলাকার কর্ণফুলী কনভেনশন হলে চার থেকে পাঁচশ লোকের আয়োজনে বিয়ের অনুষ্ঠান হচ্ছিল। গো’পন সূত্রে সংবাদ পেয়ে সেখানে অ’ভিযান চালায় পু’লিশ।

কমিউনিটি সেন্টারের সামনে পু’লিশের গাড়ি দেখেই বর রফিকুল ইস’লাম ও কনে শাহনাজ বেগমসহ উপস্থিত সবাই পালিয়ে যান। পরে কমিউনিটি সেন্টারের ব্যবস্থাপক ও পাত্রীর বাবাকে আ’ট’ক করে মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়।

এদিকে রাঙ্গুনিয়া সার্কেলের সহকারী পু’লিশ সুপার (এএসপি) মো. আনোয়ার হোসেন শামীম বলেন, ‘সোমবার সরকারি নি’ষেধা’জ্ঞার মধ্যে বিয়ের আয়োজন করায় রাউজানে অ’ভিযান পরিচালনা করা হয়। সেখানে পু’লিশ দেখে সবাই পালিয়ে যান।

পরে অনেক খোঁজাখুঁজির পর কমিউনিটি সেন্টারের ব্যবস্থাপক জামাল উদ্দিন বাদশা ও পাত্রীর বাবা মো. জামাল উদ্দিন আ’ট’ক করা হয়। কিন্তু প্রথমবারের মতো তাদেরকে সতর্ক করে মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়।’

Leave a Reply

Your email address will not be published.