May 26, 2022

বৃহস্পতিবার থেকে সাধারণ ছুটির বি’ষয়ে ভাবছে স’রকার

সারাদেশ: বর্তমানে সারাদেশে আ’শঙ্কাজনক হারে বাড়ছে প্রা’ণঘা’তী ক’রোনাভা’ইরাসের সং’ক্র’মণ। এই ভাই’রাস প্রতিরোধে ইতোমধ্যে দেশব্যাপী স’রকার ঘোষিত তিনদিনের সীমিত লকডাউন শুরু হয়েছে আজ সোমবার থেকে। এই সময়ে পণ্যবাহী গাড়ি ও রিকশা ছাড়া সব ধরনের গণপরিবহন বন্ধ থাকবে।

আগামী বৃহস্পতিবার থেকে এই লকডাউন আরও ক’ঠোর হবে- এমন ঘোষণা আগেই এসেছে। আর লকডাউন আরও ক’ঠোর হলে সে সময় অর্থাৎ আগামী বৃহস্পতিবার থেকে সাধারণ ছুটির কথা ভাবছে করছে স’রকার। সম্প্রতি ক’রোনাসংক্রান্ত জাতীয় পরামর্শক কমিটির সুপারিশের আগে থেকেই ক’ঠোর বিধি-নিষেধ বা লকডাউনের বি’ষয়টি নিয়ে স’রকারের নীতি-নির্ধারকদের ভেতরে আলোচনা হচ্ছিল। তবে অর্থবছরের শেষ, জাতীয় সং’সদ অধিবেশন চলা, উত্তরবঙ্গের আম মৌসুমসহ সার্বিক অর্থনীতির কথা চিন্তা করে ক’ঠোর সিদ্ধান্তে যেতে দ্বিধান্বিত ছিল স’রকার।

এরপরও ঘন বসতির ঢাকাকে বাঁচাতে আশপাশের সাতটি জে’লায় লকডাউন দিয়ে স’রকার পরীক্ষামূলক সতর্ক অবস্থা নিয়েছিল। সাত জে’লার লকডাউন কার্যত কোনো ফল দেয়নি। উল্টো সং’ক্র’মণ ও মৃ’ত্যুসংখ্যা বেড়েছে। এই পরিস্থিতিতে জাতীয় পরামর্শক কমিটির সুপারিশ অনুযায়ী শাটডাউনের দিকেই যাচ্ছে স’রকার। তবে কিছু ক্ষেত্রে ছাড় দিয়ে সেটা বাস্তবায়নের পরিকল্পনায় এগোচ্ছেন নীতি-নির্ধারকরা।

স’রকারের নীতি-নির্ধারণী মহলের একাধিক উচ্চপর্যায়ের সূত্রের সঙ্গে কথা বলে সাধারণ ছুটির চিন্তার কথা জানা গেছে। তবে স’রকারি প্রজ্ঞাপনে ঠিক ‘সাধারণ ছুটি’ ঘোষণা করা হবে কি না তা নিয়ে এখনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি। সাধারণ ছুটি ঘোষণা করলেও দেশ চালাতে স’রকারি অনেক গুরুত্বপূর্ণ দফতর খোলা রাখতে হয়।

এসব জায়গায় নিয়োজিত স’রকারি কর্মচারীদের সাধারণ ছুটির মধ্যে আলাদা বেতন-ভাতা দিতে হবে। বর্তমানে স’রকার কৃচ্ছতা সাধনের নীতিতে থাকায় স’রকারি ঘোষণায় ‘সাধারণ ছুটি’ শব্দটি না-ও থাকতে পারে। তবে কার্যত সাধারণ ছুটির মতোই কড়াকড়ি আরোপ হবে। অর্থাৎ জরুরি প্রয়োজনের স’রকারি-বেস’রকারি অফিস ছাড়া সব ধরনের অফিস-আ’দালত বন্ধ থাকতে পারে।

এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, গত বছরের এপ্রিল ও মে মাসে যেমন অবস্থা ছিল, তেমনি অবস্থায় না গেলে ক’রোনাভা’ইরাসের বর্তমান সং’ক্র’মণের উল্লম্ফন ঠেকানো যাবে না। সং’ক্র’মণের চেইন ভাঙতে সাধারণ ছুটিই একমাত্র ভরসা। তবে গতবারের চেয়ে দু-একটি ক্ষেত্রে ভিন্নতা থাকবে। গতবারের সাধারণ ছুটির মধ্যে জরুরি সেবার স’রকারি প্রতিষ্ঠান, হাসপাতাল, হিসাব বিভাগ, ও’ষুধ, গণমাধ্যম, খাদ্যপণ্য, কাঁচাবাজার, পোল্ট্রি, কৃষি, ব্যাংক ইত্যাদি বি’ষয়গুলো সংক্রান্ত যান ও ব্যক্তিদের চলাচলে বা’ধা ছিল না।

এবার এগুলোর সঙ্গে রফতানিমুখী গার্মেন্টশিল্প, বন্দর, বিমানবন্দর, আন্তর্জাতিক বিমান, প্রবাসীদের দেশের বাইরে যাওয়া-আসার বি’ষয়গুলোও লকডাউনের আওতামুক্ত রাখার কথা চিন্তা করা হচ্ছে। এদিকে আজ সোমবার প্রধানমন্ত্রীর সভাপতিত্বে জাতীয় সং’সদে মন্ত্রিসভার বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। বৈঠক শেষে বিকালে মন্ত্রিপরিষদস’চিব স’চিবালয়ে সাংবাদিকদের মন্ত্রিসভা বৈঠকের বি’ষয়সংক্রান্ত তথ্য জানাবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.